মঙ্গলবার , ১২ সেপ্টেম্বর ২0১৭




বাবা-মায়ের ন্যায় বিচারের প্রতিক্ষা পূর্ব ৬

কলকাতা নিউজ ২৪ : 12/09/2017

IMG-20170911-WA0094

 

 

 

 

 

 

“ষষ্ঠ খন্ড”

এদিকে  কিছুক্ষণ পর রাতের অন্ধকার কাটিয়ে দিনের আলো ফুটিয়ে তোলার জন্য সূর্যদেব পূর্ব দিকে তার আগমন ঘটালো। পূর্ব দিকে সূর্যোদয় সকলের কাছে প্রতিদিনের নিত্য ঘটনা হয়ে দাড়ায় না। কারো কাছে একটা দীর্ঘ প্রতীক্ষা হয়, যেমন আমাদের কাছে সূর্যোদয় টি ছিল একটা দীর্ঘ প্রতীক্ষা। সকাল বেলা হয়ে গেলো আমি ও আমাদের বাড়ি থেকে আসা সকলেই বসে আছে দীর্ঘ প্রতীক্ষা নিয়ে কখন বাবারা থানা থেকে ফিরে আসবে সেই অপেক্ষায়। মহিলারা সকলেই আমার কাছে জানতে চাচ্ছে কখন বাবারা থানা থেকে ফিরে আসবে। আমি তাদের শান্ত করার জন্য বাবাকে ফোন করলাম, তিনি আমাকে জানিয়ে দিলেন যে তারা আলোচনায় বসেছেন এবং তিনি আমাকে ওই সময় ফোন করতে বারণ করলেন। আমি সেই মতো করে মহিলাদের জানালাম।

কিছুক্ষণ পর দেখলাম আমাদের বাড়ির ওখান থেকে আরও দুটো গাড়িতে লোকজন আসলো। তারা এসেই আমার মৃতদিদির ঘরে প্রবেশ করলো। তারা আসার পর নতুন করে আবার একটা কান্নার রোল শুরু হয়ে গেলো। আমি তাদের কে মৃতদিদির ঘর থেকে বাহির হয়ে আসতে বললাম এবং তাদের জানালাম তারা যেনো কোন জিনিসে হাত না দেয়। কেননা তারা  আসার পর মৃতদিদির দেহটাকে জড়িয়ে ধরে কান্না শুরু করেছিল যদি এর ফলে প্রমাণ গুলি নষ্ট হয়ে যায় সেই আমি তাদেরকে সেখান থেকে জোর পূর্বক সরাতে লাগলাম। আকাশে সূর্যদেব যত উপরে উঠতে লাগলো আমাদের ওদিক থেকে তত বেশী লোক এসে জমা হতে লাগল। আমাদের বাড়ি থেকে আমার মৃতদিদির বাড়ির দুরত্ব প্রায় ৭০ কিলোমিটার হবে। আমি দেখতে পেলাম আমাদের এলাকা থেকে প্রায় ৮০-৯০ খানা বাইক এসে আমার মৃতদিদির বাড়িতে জমা হয়েছে। প্রত্যেক বাইকে ৩জন করে লোক ছিল।



Executive Editor: Akash Biswas
Associate Editor : Advocate Anshuman Sengupta
Address : kolkata
E-mail: [email protected]
© Copyright 2015 FILM & CRCC Computer center All rights reserved.