শুক্রবার, ২0 জুলাই ২0১৮
  • হোম » কলকাতা » ভাঙড়ের সমস্যা মেটাতে নির্দেশ প্রশাসনকে,আরাবুলকে কড়া ধমক মমতার




ভাঙড়ের সমস্যা মেটাতে নির্দেশ প্রশাসনকে,আরাবুলকে কড়া ধমক মমতার

কলকাতা নিউজ ২৪ : 26/03/2018

DSC_7360 (1)

রানি পারভিন ,পৈলানঃ  ভাঙড় সমস্যা সামাধান করতে প্রশাসন কে কড়া নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর ,ভাঙড় প্রশ্নে তৃণমূলের স্থানীয় নেতাদের ভূমিকায় তিনি যে ভীষণ রুষ্ট, সোমবার পৈলানের প্রশাসনিক বৈঠক থেকে আমলাদের সামনেই আরাবুল ও  কাইজার কে কড়া ধমক দিয়ে তা স্পষ্ট করে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

বিদ্যুতের পাওয়া গ্রিড তৈরির জমি অধিগ্রহণকে কেন্দ্র করে কৃষিজমি রক্ষা কমিটি গড়ে সিঙ্গুর, নন্দীগ্রামের কায়দায় আন্দোলনে নেমেছেন একাংশ গ্রামবাসী৷ ইতিমধ্যে একাধিকবার রক্ত ঝরেছে সেখানে৷ মারা গিয়েছেন বেশ কয়েকজন৷ স্বভাবতই, রুষ্ট মুখ্যমন্ত্রী এদিন কাইজার বা আরাবুলের কোনও কথায় শুনতে চাননি৷

 

সভাস্থলে অন্য বিধায়ক বা জন প্রতিনিধিদের কথা শুনলেও আরাবুল বা কাইজার  কোনও কথায় শুনতে চাননি রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান৷ ভাঙড়ের তৃণমূল নেতা আরাবুল ইসলামের উদ্দেশ্যে মুখ্যমন্ত্রীকে বলতে শোনা যায়, ‘‘আরাবুল তোর কি কিছু বলার আছে? কি বা বলবি? ঝগড়া করা ছাড়া তো তোর আর কোনও কাজ নেই৷’’ নিজেই বলতে থাকেন, ‘‘তুই (আরাবুল) তো পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি৷ এর পরই আরাবুল বলেন, “দিদি আপনি ভাঙড় ২ নং ব্লকে জমির মিউটেশন বন্ধ করে রেখেছেন, তাতে মানুষ ঘর করতে পারছে না ,” আরাবুলের   এই আর্জি শুনে রুষ্ট মুখ্যমন্ত্রী ধমকের সুরে বলেন,কয়েকটা প্রোমাটারের জন্যই এলাকায় ওই প্রবলেম,সমস্যা সমাধান না হলে কিছু হবে না ।

 

একইভাবে মুখ্যমন্ত্রীর ধমকের মুখে পড়েছেন কাইজার ৷ এদিনের বৈঠকে কাইজার মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে বলতে শুরু করেন, ‘‘এলাকারা পানীয় জলে আর্সেনিক সমস্যা মারাত্মক….৷’’ মাঝ পথে থামিয়ে দিয়ে রুষ্ঠ মুখ্যমন্ত্রীর হুঙ্কার, ‘‘ জল করে দেব ,আগে বিদ্যুৎ এর সমস্যা মেটাও।”

এরপরই ভাঙড়ের জমি আন্দোলন প্রসঙ্গে জেলাশাসকের প্রতি মুখ্যমন্ত্রীর কড়া নির্দেশ, ‘‘ভাঙড়ের বিষয়ে আপনি (জেলাশাসক) বৈঠক ডাকুন৷ ওদের (আন্দোলনকারীদের) ৫ জন প্রতিনিধিকে ডাকুন৷ ওরা কী বলতে চাইছে জেনে আমাকে জানান৷ তার পর আমি সিদধান্ত নেব ।

দলীয় সূত্রের খবর, রাজ্যের অন্যান্য এলাকার মতো তীব্র গোষ্ঠী কোন্দল রয়েছে ভাঙড়েও৷ ওই মহলের মতে, তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দলের জেরেই জমি আন্দোলন ক্রমেই তীব্রতর হয়েছে৷ সেকারণেই এদিনের সভা থেকে আরাবুল ও কাইজার কে  কড়া ধমক দেন মুখ্যমন্ত্রী৷

ভাঙ্গড়ের নেতাদের পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী ধমকের মুখে পড়েন ক্যানিং পূর্বের বিধায়ক সওকাত মোল্লা।এদিন  সওকাত মোল্লা জীবনতলায় একটি বাস টার্মিনাল এর জন্য প্রস্তাব দেন। তৎক্ষণাৎ মুখ্যমন্ত্রী বলেন, তোরা মারপিট করিস আর বোমা বাঁধিস,জাহাঙ্গির কে ঢুকতে দিচ্ছিস না ।



Executive Editor: Akash Biswas
Associate Editor : Advocate Anshuman Sengupta
Address : kolkata
E-mail: [email protected]
© Copyright 2015 FILM & CRCC Computer center All rights reserved.